সোমবার, ২০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

২৮ বছর পরও করবে অক্ষত লাশ!

চাঁদপুর প্রতিনিধি


২৮ বছর আগে দাফন করা এক বৃদ্ধ ব্যক্তির মরদেহ অক্ষত অবস্থায় পাওয়া গেছে। মরদেহ এবং কাফনের কাপড়ও ছিল অক্ষত। চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার ছেংগারচর পৌরসভার ডেঙ্গুরভিটি গ্রামের ঘটনা এটি।
সোমবার (১৮ সেপ্টেম্বর) দুপুরে পুণরায় ওই মরদেহ দাফন করেন গ্রামবাসী। মতলব উত্তর উপজেলার  ডেঙ্গুরভিটি গ্রামের বাসিন্দা মো. সাহেব আলী খান ৭২ বছর বয়সে ১৯৯৬ সালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন। পরে তাকে ওই গ্রামের পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছিল।
মরহুম সাহেব আলী খানে ছেলে মো. মোবারক হোসেন খান বলেন, আমি দীর্ঘদিন ধরে প্রবাসে বসবাস করে আসছি, আমাদের গ্রাম থেকে ফোনে আমাকে জানানো হয়েছে আমার বাবার কবরের উপর দিয়ে রাস্তা যাচ্ছে। আমি কয়েক বার স্বপ্নেও দেখেছি বাবা বলেছে আমার কবরের উপর দিয়ে রাস্তা যাচ্ছে, তুমি আমার কবরটা এখান থেকে অন্য যায়গায় স্থানান্তর কর। তখন আমি আমার চাচা এবং গ্রামের লোকজনকে বলেছি আমি দেশে আসলে আমার বাবার কবরটা এখান থেকে স্থানান্তর করব। গত রবিবার আমি ইতালি থেকে দেশে এসে হুজুরদের সাথে পরামর্শ করে ধর্মীয় নিয়ম মেনে আত্মীয়স্বজন ও এলাকার লোকজন নিয়ে সকাল ১১টার দিকে কবরের কাছে যাই। কবর খুঁড়তেই সাদা কাপড় দেখতে পাই আমরা। একপর্যায়ে অক্ষত মরদেহ দেখে ওই জায়গা থেকে উত্তোলন করে আমার মায়ের কবরের পাশে দাফন করি। ২৮ বছর পরও বাবার মরদেহ অক্ষত দেখে সবাই প্রথমে হতভম্ব হলেও পরে বুঝতে পারি এটা  আল্লাহর একটা রহমত।
এ বিষয়ে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

Comments are closed.

More News Of This Category