মঙ্গলবার, ১৬ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১লা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দিনাজপুরের হিলিতে পেঁয়াজের দাম কমেছে

বিশেষ প্রতিবেদক,দিনাজপুর


একদিনের ব্যবধানে দিনাজপুরের হিলিতে কমেছে ভারত থেকে আমদানিকৃত পেঁয়াজের দাম। কেজি প্রতি প্রকারভেদে ৫ টাকা কমে বর্তমানে ভারতীয় পেঁয়াজ পাইকারী বাজারে বিক্রি হচ্ছে ৪০ থেকে ৪৫ টাকা দরে।

সরবরাহ বেশি এবং বৃষ্টির কারণে ক্রেতা কম থাকায় পেঁয়াজের দাম কমতে শুরু করেছে বলছেন ব্যবসায়ীরা। দাম কমাতে কিছুটা স্বস্তি ফিরেছে সাধারণ ক্রেতাদের মাঝে। বাজার মনিটরিং করলে বাজার আরও নিয়ন্ত্রণে আসতো বলে মনে করেন সচেতন মহল।

শুক্রবার (২৫ আগস্ট) সকালে হিলি বাজার ঘুরে এ তথ্য পাওয়া যায়।

বগুড়া থেকে পেঁয়াজ কিনতে আসা আনারুল ইসলাম বলেন, পেঁয়াজের দাম অনেকটাই বেশি। অন্যদিকে পেঁয়াজের মান আগের থেকে কিছুটা খারাপ। বৃষ্টির কারনে পেঁয়াজ ভালো ভাবে দেখে নেওয়া যাচ্ছে না।

হিলি বাজারের পেঁয়াজ ও কাঁচা মরিচ বিক্রেতা সোহেল রানা বলেন, একদিনের ব্যবধানে পেঁয়াজ এবং কাঁচা মরিচের দাম কিছুটা কমেছে। বর্তমানে পেঁয়াজ ৪০ থেকে ৪৫ টাকায় এবং কাঁচা মরিচ কেজি প্রতি ৪০ টাকা কমেছে। আমরা কম দামে কিনে কম দামে বিক্রি করছি।

হিলি স্থলবন্দরের আমদানি-রপ্তানিকারক গ্রুপের সভাপতি হারুন-উর রশিদ হারুন বলেন, হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ৪০ শতাংশ শুল্ক দিয়েই ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি হচ্ছে। যার ফলে প্রতি কেজি পেঁয়াজের দাম ৫ থেকে ১০ টাকা বৃদ্ধি পেয়েছে। ভারত সরকার যদি শুল্ক প্রত্যাহার করে তাহলে দাম আগের মতোই স্বাভাবিক হবে। আমদানি অব্যাহত থাকলে দাম স্বাভাবিক থাকবে।

হিলি কাস্টমসের তথ্য মতে, হিলি স্থলবন্দর দিয়ে বৃহস্পতিবার ভারতীয় ২৮ ট্রাকে ৮৪৫ মেট্রিকটন পেঁয়াজ, ১৩ ট্রাকে ১০৬ মেট্রিকটন কাঁচা মরিচ আমদানি হয়েছে।

Comments are closed.

More News Of This Category